নীড় পাতা / ব্রেকিং / রাঙামাটিতে ট্রাফিক পুলিশ সপ্তাহ শুরু

রাঙামাটিতে ট্রাফিক পুলিশ সপ্তাহ শুরু

সারা দেশের ন্যায় একযোগে রাঙামাটিতেও পালিত হচ্ছে ট্রাফিক পুলিশ সপ্তাহ। রবিবার সকালে রাঙামাটি শহরের বনরূপা সিএনজি স্ট্রেশনে ট্রাফিক পুলিশ সপ্তাহ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান পালিত হয়।

এতে পুলিশ সুপার মো. আলমগীর কবীর’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন পৌরসভার মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী, রাঙামাটি প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি সুনীল কান্তি দে, অটোরিক্সা শ্রমিক-মালিক ইউনিয়নের সভাপতি পরেশ মজুমদার, বাস ও লঞ্চ মালিক সমিতির সভাপতি মঈন উদ্দীন সেলিম।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ বলেন, যে কাজ বড়দের করার প্রয়োজন ছিলো তা ছোটদের কাছ থেকে শিখতে হয়েছে। তারা বুঝিয়ে দিয়েছে কার কি দায়িত্ব এবং কর্তব্য। সারা দেশের সাথে আমরাও একযোগে ট্রাফিক সপ্তাহ পালন করছি। এই ট্রাফিক সপ্তাহের মাধ্যমে আমরা সুষ্ঠু ও সুন্দর ভাবে যেনো পরিবহন রাস্তা চলাচল করে সে বিষয়ে সচেতন করবো। এছাড়া গাড়ি সার্বিক কাগজ-পত্র সঠিক ভাবে সাথে রাখার জন্যে নির্দেশনা করবো এবং তা চেক করবো। এ ধারাবাহিকতায় প্রতি সপ্তাহে যেনো এমন করে দুই-একদিন এ কর্মসূচি পালিত হয় সে দিকে নজর রাখার আহ্বানও জানান তিনি।

সভাপতির বক্তব্যে পুলিশ সুপার মো. আলমগীর কবীর বলেন, আমরা সকলে দেশের সেবাই নিয়োজিত। হয়তো আমাদের কারো কারো দায়িত্বের প্রতি অবহেলা ছিলো। তাই আজ স্কুলের ছোট ছোট শিশুরা আমাদেরকে মনে করিয়ে দিয়েছে আমাদের দায়িত্ব কি কি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তাদের সকল বক্তব্য শুনে আমাদেরকে নির্দেশ দিয়েছেন কিভাবে কি কাজ করতে হবে। আমরা সে অনুসারে কাজ করে যাচ্ছি। শিক্ষার্থীদের প্রয়োজন এখন আমাদেরকে সুযোগ দেওয়ার এবং তাদের ঘরে ফিরে যাওয়া।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আলোচনা সভার পরে উপস্থিত অতিথিরা রাস্তায় বিভিন্ন গাড়ি থামিয়ে তাদের লাইসেন্স ও গাড়ির ফিটনেস চেক করেন। এছাড়া বিভিন্ন সচেতনতা মূলক নিদের্শনা প্রদান করেন।

আরো দেখুন

চন্দ্রঘোনা ইউপি চেয়ারম্যান বেবী’র ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

অসহায় শিক্ষিত মহিলাদের আত্মনির্ভরশীল হিসেবে গড়ে তুলতে চন্দ্রঘোনা ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী বেবী নিয়েছেন …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

1 × three =