নীড় পাতা / ব্রেকিং / ‘পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার না হলে চুক্তিও বাস্তবায়ন হবেনা’

‘পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার না হলে চুক্তিও বাস্তবায়ন হবেনা’

সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ফিরাজা বেগম চিনু এমপি বলেছেন, আজকে আমরা স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি পাচ্ছি না। সন্ত্রাসীরা, চাঁদাবাজরা যাবে যেভাবে পারে হত্যা করছে। আমরা দেখেছি দিনের বেলা প্রকাশ্যে একজন চেয়ারম্যানকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। পরদিন তার শেষকৃত্যে যাওয়ার পথে নিহত হন আরো ৫ জন। যারা পাহাড়ে অন্ত্র, চাদাঁবাজি, আধিপত্য বিস্তার করছে, তারাই এসব ঘটনা ঘটিয়ে যাচ্ছে। আমরা মাটি ও মানুষের অধিকারে কথা বলি। যতদিন পর্যন্ত পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার হবেনা। ততদিন পর্যন্ত চুক্তিও বাস্তবায়ন হবে না।

রোববার সকালে সচেতন নাগরিক সমাজের ব্যানারে ‘স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি চাই’ এই স্লোগানে আয়োজিত মহাসমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

চিনু বলেন, আমরা স্বাধীন বিচার ব্যবস্থাকে বিশ^াস করি বলে আজ আমরা এখনো চুপচাপ আছি। আমরা স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি চাই। আমরা সস্ত্রাসী চাঁদাবাজদের হাত থেকে নিজেদের রক্ষা চাই। আমরা ঐক্যবদ্ধ থাকলে অবশ্যই সস্ত্রাসীরা পালাতে পারবেনা।

এর আগে রোববার সকালে পাহাড়ে অব্যাহত সস্ত্রাস, চাঁদাবাজি, খুন, গুম, অবৈধ অসস্ত্র উদ্ধার ও স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টির দাবিতে রাঙামাটি পৌরচত্বর থেকে একটি র‌্যালি শুরু হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে নিউ মার্কেট গিয়ে সমাবেশে মিলিত হয়।

আরো দেখুন

পাহাড়ে রাজনৈতিক দলের কর্মসূচিতে স্কুল শিক্ষার্থীদের ব্যবহার না করার আহ্বান

‘পাহাড়ে আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলের সংঘাতপূর্ণ অবস্থার কারণে একের পর এক হত্যার ঘটনা ঘটছে। প্রতিদিনই পড়ছে …

2 মন্তব্য

  1. পাগলে কিনা বলে , ছাগলে কিনা
    খাই ৷

  2. তাহলে তো এই থেকে বুঝা যায় সরকারও চাই না শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন হোক

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

three × one =