নীড় পাতা / পাহাড়ের সংবাদ / খাগড়াছড়ি / নেতাকর্মী খুনের ঘটনায় ‘ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিক’কে দায়ী ইউপিডিএফ

নেতাকর্মী খুনের ঘটনায় ‘ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিক’কে দায়ী ইউপিডিএফ

ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)’র সংগঠক মিঠুন চাকমাসহ নেতাকর্মী হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার ও পার্বত্য চট্টগ্রামের বিদ্যমান পরিস্থিতি নিয়ে প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইউপিডিএফের উদ্যোগে সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জেলা শহরের স্বনির্ভর এলাকায় সংগঠনটির কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংটি অনুষ্ঠিত হয়।

এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ইউপিডিএফের কেন্দ্রীয় সদস্য নতুন কুমার চাকমা। তিনি বলেন, মিঠুন চাকমা হত্যার ৫দিন অতিবাহিত হলেও প্রশাসন এখনো কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। এই হত্যাকান্ডের জন্য ‘ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিক’কে দায়ী করে তিনি বলেন, মিঠুন চাকমা ছাড়াও ৫ডিসেম্বর রাঙামাটির বেতছড়িতে সাবেক ইউপি সদস্য অনাদি রঞ্জন চাকমা এবং ১৬ ডিসেম্বর বন্দুকভাঙ্গায় ইউপিডিএফ সংগঠক অনিল বিকাশ চাকমাকে হত্যার সাথেও তারা জড়িত। এদিকে মিঠুন চাকমার লাশ নিয়ে প্রশাসনের আচরণ, অবরোধে বাধা প্রদানের তীব্র প্রতিবাদ জানান।

প্রেস ব্রিফিং থেকে নেতাকর্মীদের খুনের ঘটনায় নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। এতে রয়েছে আগামী ৯জানুয়ারি খাগড়াছড়ির ৮ উপজেলায় বিক্ষোভ, ১১ ও ১৪ জানুয়ারি খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ, স্মরণসভা ও প্রদীপ প্রজ্জ্বলন, ১৭ জানুয়ারী রাঙামাটি ও বান্দরবানে সংহতি সমাবেশ, ১৯ জানুয়ারি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সংহতি সমাবেশ এবং ২৮ জানুয়ারি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জারিকৃত প্রজ্ঞাপন বাতিলসহ ৮দফা দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেয়া হয়।

প্রেস ব্র্রিফিং এ এসময় উপস্থিত ছিলেন ইউপিডিএফের জেলা সংগঠক মাইকেল চাকমা, গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জিকো ত্রিপুরা, পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের সভাপতি বিনয়ন চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরুপা চাকমা প্রমুখ।

গত বুধবার দুপুরে প্রসিত খীসার নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফ’র অন্যতম সংগঠক মিঠুন চাকমাকে খাগড়াছড়ি শহরের স্লুইচ গেইট এলাকায় গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় নিজ দলের বিদ্রোহীদের দায়ী করেছে ইউপিডিএফ। এর আগে আভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বে গত নভেম্বরে দুই ভাগে বিভক্ত হয় দলটি। সংগঠনের বিদ্রোহীদের নিয়ে ‘গণতান্ত্রিক ইউপিডিএফ’ নামে আত্মপ্রকাশ করে নতুন আরেকটি সংগঠন।

আরো দেখুন

চারবছর পর রাঙামাটি প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগ শুরু

মনোজ্ঞ নৃত্যের ছন্দের মধ্য দিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামের তৃনমুল পর্যায়ের বিভিন্ন ফুটবল খেলোয়ারদেরকে তুলে এনে স্থানীয় …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

five × 3 =