নানিয়ারচরে পাল্টাপাল্টি হামলায় নিহত ২


প্রকাশের সময়: এপ্রিল 12, 2018

নানিয়ারচরে পাল্টাপাল্টি হামলায় নিহত ২

বুধবার রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলায় ইউপিডিএফের এক সদস্যকে গুলি করে হত্যা করার ২৪ ঘন্টার মধ্যে পাল্টা প্রতিশোধ হিসেবে জনসংহতি সমিতি(এমএনলারমা)’র এক কর্মীকে হত্যা করেছে ইউপিডিএফ,এমন অভিযোগ পাওয়া গেছে ! ফলে ২৪ ঘন্টার মধ্যেই একসময় ইউপিডিএফ এর শক্তিশালী ঘাঁটি হিসেবে এবং সম্প্রতি নিয়ন্ত্রন ‘আলগা’ হয়ে পড়া নানিয়ারচর উপজেলায় অন্তত: ২ জনের মৃত্যুর ঘটনার নিশ্চিত করেছে বিভিন্নসূত্র। রাঙামাটি হাসপাতাল মর্গে বৃহস্পতিবার সকাল অবধি দুইজনের মৃতদেহ আনা হয়েছে, ২ জনের মৃত্যুই নিশ্চিত করেছে আইনশৃংখলাবাহিনী ও সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো। আরেক জনসংহতি সমিতি (এমএনলারমা) কর্মী কালোময় চাকমার খোঁজ এখনো মিলছেনা বলে দাবি করছে সংশ্লিষ্টরা,তাকেও হত্যা করা হয়েছে এমন দাবি করছে সংশ্লিষ্টসূত্রগুলো। আইনশৃংখলাবাহিনী এই বিষয়টি নিশ্চিত করেনি।

গত বুধবার দুপুর সোয়া ১টার দিকে নানিয়ারচর উপজেলার ২ নং সাবেক্ষং ইউনিয়নের ফরেস্ট অফিস এলাকায় ইউপিডিএফ সদস্য জনি তঞ্চঙ্গ্যা (৪০)কে গুলি করে হত্যা করে যায় একদল সশস্ত্র দুর্বৃত্ত। ইউপিডিএফ সমর্থিত পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের রাঙামাটি জেলার সভাপতি কুনেন্টু চাকমা এ হত্যাকান্ডের এ ঘটনায় পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (এমএনলারমা)’কে দায়ী করেছিলেন।

যদিও পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (এমএনলারমা) অন্যতম শীর্ষ নেতা ও নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট শক্তিমান চাকমা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এসব ইউপিডিএফের মিথ্যা অপপ্রচার, ভাওতাবাজি। তারা হত্যা,গুম,খুনের রাজনীতি করে,আমরা নই।

এই ঘটনার কয়েকঘন্টার মধ্যে জনসংহতি সমিতি (এমএনলারমা)র কর্মী পঞ্চায়ন চাকমা ওরফে সাধন চাকমা (৩০) ও কালোময় চাকমা (২৯ )কে পেরাছড়া এলাকা থেকে অপহরণ করে নিয়ে যায় ইউপিডিএফ,এমন অভিযোগ করে সংগঠনটির অন্যতম শীর্ষ নেতা সুদর্শন চাকমা জানিয়েছেন, তাকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার পর হত্যা করে তার গলাকাটা লাশ কেঙ্গালছড়ি এলাকায় একটি সেতুর উপর ফেলে যায় ইউপিডিএফ এর সন্ত্রাসীরা। তিনি এই হত্যাকান্ডের জন্য ইউপিডিএফকে দায়ি করেছেন। তবে কালোময় চাকমার ভাগ্যে কি ঘটেছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। নিহত পঞ্চায়ন চাকমার বাড়ি নানিয়ারচর উপজেলার সাবেক্ষ্যং ইউনিয়নের মগাছড়া গ্রামে এবং তিনি শশী বিকাশ চাকমার পুত্র বলে জানিয়েছেন তিনি।

ইউপিডিএফ মুখপাত্র নিরন চাকমাকে তাদের বক্তব্য জানার জন্য বারবার ফোন করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

এদিকে পঞ্চায়ন চাকমা সাধন এর লাশও বৃহস্পতিবার সকালে রাঙামাটি হাসপাতাল মর্গে আনা হয়েছে। সেখানে দুটি লাশই পোস্টমর্টেম এর জন্য রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নানিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল লতিফ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, নানিয়ারচর উপজেলায় পাল্টাপাল্টি হামলায় দুইজন মারা গেছেন। তাদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাঙামাটিতে আনা হয়েছে। নিজেদের দলীয় অন্তঃকোন্দলের জন্য এই দুই হত্যাকান্ড হতে পারে বলে ধারণা করছেন ওসি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Top advertise


এই সংবাদটিতে আপনার মতামত প্রকাশ করুন

avatar
  Subscribe  
Notify of