থানচিতে কার্বারীর খোজে যৌথ বাহিনী, আটক ২


বান্দরবান প্রতিনিধি প্রকাশের সময়: মে 13, 2018

থানচিতে কার্বারীর খোজে যৌথ বাহিনী, আটক ২

বান্দরবানের থানেিত অপহৃত পাড়া প্রধান (কার্বারী) খোজ মেলেনি। তবে অপহৃতের স্ত্রী এবং বোন’কে ছেড়ে দিয়েছে অস্ত্রধারী সন্ত্র্সাীরা। অপহৃতকে উদ্ধারে যৌথ বাহিনী মিয়ানমার সীমান্তঞ্চল’সহ আশপাশের এলাকাগুলোতে অভিযান চালাচ্ছে। অপহরণের ঘটনায় যৌথ বাহিনী ২ জনকে আটক করেছে। রবিবার এ ঘটনা ঘটে।
যৌথ বাহিনী ও স্থানীয়রা জানায়, শনিবার বিকালে জেলার থানচি উপজেলার সদর ইউনিয়নের তুংখং পাড়া এলাকা থেকে অস্ত্রের মুখে সন্ত্রাসীরা তুংখং পাড়া প্রধান (কার্বারী) আথুই মং মারমা (৫৫ এবং তার স্ত্রী আদিমা মারমা (৪২), বোন মেনু প্রু মারমা (২২) তিন জনকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। অপহরণের পর রবিবার বিকালে অপহরণকারী সন্ত্রাসীরা পাড়া প্রধানের স্ত্রী এবং বোন দুজনকে ছেড়ে দিয়েছে। অপহৃত কার্বারীকে উদ্ধারে যৌথ বাহিনী মিয়ানমার সীমান্ত অঞ্চলসহ আশপাশের এলাকাগুলোতে অভিযান চালাচ্ছে। এদিকে অপহরণের ঘটনায় যৌথবাহিনী ২ জনকে আটক করেছে। এরা হলেন-নুচিং থোয়াই মারমা (২২) এবং হাই মং চিং (২৫)। এদের বাড়ি তুংখং পাড়ায়। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে থানচি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুচ সাত্তার জানান, অপহৃত কার্বারী আথুই মং মারমা’কে উদ্ধারে যৌথ বাহিনীর অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তবে অপহৃতের স্ত্রী এবং বোন দুজন পালিয়ে আসতে সক্ষম হয়েছে। কিন্তু কোনো মুক্তিপন দাবী করা হয়নি।
তবে স্থানীয়রা জানিয়েছে, অপহৃত পাড়া প্রধানের ছেলে মংমংসিং মারমা (২১) অপহরণকারী অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের কাছ থেকে ১টি অস্ত্র নিয়ে সম্প্রতি পালিয়ে আসে। অস্ত্রটি কার্বারীর ছেলে অপহরণকারীদের কাছে হস্তান্তর করা হলে অপহৃত প্রধানকে মুক্তি দিবে সন্ত্রাসীরা। বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেনি যৌথ বাহিনী। তবে লোকমুখে এ ধরণের কথা শোনা যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন থানচির থানার ওসি।
এদিকে অপহৃত পাড়া প্রধানের ভাই চথুই মং মারমা বলেন, আমার বড়ভাই কারবারীর ছেলে মংমংসিং মারমা দুবছর আগে মিয়ানমারের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন আরাকান আর্মি (এ.এ) যোগ দিয়েছিল। প্রায় আট লাখ টাকা নিয়ে সে সম্প্রতি আরাকান আর্মি ছেড়ে পালিয়ে আসে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Top advertise


এই সংবাদটিতে আপনার মতামত প্রকাশ করুন

avatar
  Subscribe  
Notify of