জেলা প্রশাসকের বিরুদ্ধে মামলা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের

0
top article add

বান্দরবানে জেলা প্রশাসকসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান। বুধবার দুপুরে বান্দরবানের যুগ্ম জেলা জজ আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়। আসামিরা হলেন-বান্দরবান জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক, চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান, চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের বিদ্যালয় পরিদর্শক, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সহকারী সচিব এবং ডবস্কো উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

মামলার এজাহার সূত্রে জানাগেছে, জেলা শহরে দুই একর জমি উপরে ১৯৫৮ সালে ডনবস্কো উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হয়। ১৯৮০ সালে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি এমপিও ভুক্ত হয়। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বিদ্যালয়টি মিশনারি কর্তৃপক্ষ পরিচালনার পর ১৯৭৭ সালের ১ জুলাই বিদ্যালয় পরিচালনা ও সার্বিক ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব স্থানীয় প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করা হয়। বিদ্যালয়টি ম্যানেজিং কমিটির বিধিমালা ২০০৯ এর যথাক্রমে ৪ এবং ৭ ধারা মোতাবেক পরিচালিত হয়ে আসছে। পার্বত্য শান্তি চুক্তির আলোকে জেলার মাধ্যমিক শিক্ষার কার্যক্রম পার্বত্য জেলা পরিষদের কাছে হস্তান্তরিত ও ন্যস্ত বিভাগ। পার্বত্য চুক্তির আলোকে ২০১৪ সালে ২৬ মে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক একটি চুক্ষিও স্বাক্ষরিত হয়। দীর্ঘদিন ধরে ডনবস্কো উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি হিসেবে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যাশৈহ্লা দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

পার্বত্য জেলা পরিষদের (বাদীপক্ষের) আইনজীবী বাচিং থোয়াই বলেন, পার্বত্য চুক্তির আলোকে মাধ্যমিক বিভাগ পার্বত্য জেলা পরিষদের কাছে হস্তান্তরিত ন্যস্ত বিভাগ। তারপরও শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে ৩০/১১/২০১৭, জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকে ২২/১/২০১৮, চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের বিদ্যালয় পরিদর্শক অফিস থেকে ২৫/১/২০১৮ তারিখ প্রেরিত পত্রে বান্দরবানের জেলা প্রশাসককে বান্দরবান ডনবস্কো উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির (এডহক) সভাপতি মনোনীত করা হয়। পত্রসমূহ আইনের বিধানমতে বেআইনি এবং তিনটি স্মারকে প্রেরিতপত্রসমূহ চুক্তির আইনের লংঘন। তাই পত্রসমূহ বাতিল ঘোষণার জন্য মামলাটি দায়ের করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক বলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আদেশে ডনবস্কো উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি গঠন এবং যাবতীয় ব্যাংক লেনদেন বন্ধ রাখার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কিন্তু পার্বত্য জেলা পরিষদ এবং বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মন্ত্রণালয়ের আদেশ মানতে নারাজ। তারা বিষয়টি না মানলে আমি কি করবো। তবে মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগের উচ্চ বিদ্যালয়গুলো পার্বত্য জেলা পরিষদের কাছে হস্তান্তরের বিষয়টি তার জানা নেই বলে জানান জেলা প্রশাসক।

1
এই সংবাদটিতে আপনার মতামত প্রকাশ করুন

avatar
1 Comment threads
0 Thread replies
0 Followers
 
Most reacted comment
Hottest comment thread
1 Comment authors
ঐক্য শান্তি প্রগতি Recent comment authors
  Subscribe  
newest oldest most voted
Notify of
ঐক্য শান্তি প্রগতি
Guest

জেলা প্রশাসক মহোদয়ের উচিত হবে দূর্নীতিগ্রস্ত জ্বালা পরিষদ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা করা।