নীড় পাতা / ব্রেকিং / আন্দোলনে পৌর কর্মচারিরা,বিপাকে রাঙামাটিবাসি

আন্দোলনে পৌর কর্মচারিরা,বিপাকে রাঙামাটিবাসি

রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে বেতন পাওয়ার দাবিতে সারাদেশের মতো রাঙামাটি পৌরসভার কর্মচারি কর্মকর্তারা নেমেছেন আন্দোলন। ইতোমধ্যেই ঢাকায় অনির্দিষ্টকালের অবস্থান কর্মসূচীতে যোগ দিয়েছেন রাঙামাটি পৌরসভার ২০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল। রাঙামাটি পৌরসভা কর্মচারি সংসদের সভাপতি কে এম বশির হোসেন এবং সাধারন সম্পাদক সনৎ বড়–য়ার নেতৃত্বে রাঙামাটি পৌরসভার ২০ জন কর্মচারি রাজধানীতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান ধর্মঘটে যোগ দিয়েছেন। তাদের সাথে রয়েছেন পৌরসভার সহকারি প্রকৌশলী বিরল বড়–য়া,হিসাবরক্ষন কর্মকর্তা সাকুর মিয়া,পৌর মেয়রের ব্যক্তিগত সহকারি দীপন ঘোষ,স্যানিটেরি ইন্সপেক্টর ফিরোজ আলম মাহমুদও।

এদিকে ঢাকায় কর্মসূচীতে যোগ দেয়ার পাশাপাশি রাঙামাটি পৌরসভাতেও সকল প্রকার সেবা কার্যক্রম ব্ধ করে দিয়েছে পৌরসভার কর্মকর্তা কর্মচারিরা। আবর্জন অপসারণ বন্ধ করে দেয়ায় পুরো শহরে জমেছে আবর্জনার স্তুপ,বন্ধ আছে পৌরসভার বিদ্যুৎ সেবাও। জন্ম নিবন্ধন ও নাগরিক সনদ,ট্রেড লাইসেন্স প্রদানসহ সকল সেবাই বন্ধ আছে। সারাদেশে চলশান আন্দোলনের অংশ হিসেবেই এইসব সেবা কার্যক্রম বন্ধ আছে বলে জানিয়েছেন পৌর কর্মচারিরা।

রাঙামাটি পৌর কর্মচারি সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক বিপ্লব তালুকদার জানিয়েছেন, রাঙামাটি পৌরবাসির সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা দু:খ প্রকাশ করছি। আমাদের মাননিক ও মৌলিক এই দাবি বাস্তবায়নে আশা করছি সারাদেশের সব পৌরবাসির মতো রাঙামাটি পৌরবাসিও সাময়িক এই কষ্টকে হাসিমুখে মেনে নিবেন। আমরা কথা দিচ্ছি,আন্দোলনে বিজয়ী হয়ে ফিরে আসার পর আমার পৌরবাসির এই কষ্টের দ্রুত লাঘব করার ব্যবস্থা করব।

রাঙামাটি পৌর কর্মচারি সংসদের সভাপতি একেএম বশির হোসেন জানিয়েছেন, সরকারি কোষাগার থেকে বেতন ভাতার দাবিতেই আমাদের এই আন্দোলন। আমাদের বিশ্বাস মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,বঙ্গবন্ধুকণ্যা শেখ হাসিনা আমাদের এই দাবি অবশ্যই মেনে নিবেন এবং আমাদের অসহায় পরিবারগুলোর পাশে দাঁড়াবেন।

আরো দেখুন

রাঙামাটি শহরে আওয়ামীলীগ-বিএনপি সংঘর্ষে আহত ৮

পার্বত্য শহর রাঙামাটিতে নির্বাচনী পথসভাকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগ ও বিএনপির কর্মীদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

four + seven =