নীড় পাতা / পাহাড়ের সংবাদ / বান্দরবান / অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও চাঁদাবাজি বন্ধে যৌথ বাহিনীর অভিযান দাবি

অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও চাঁদাবাজি বন্ধে যৌথ বাহিনীর অভিযান দাবি

পাহাড়ে চাঁদাবাজি, হত্যা, খুন সন্ত্রাসী কর্মকান্ড বন্ধের দাবিতে বান্দরবানে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে প্রেসক্লাবের সামনে পার্বত্য নাগরিক পরিষদসহ কয়েকটি বাঙালি সংগঠনের ব্যানারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচিতে বাঙালি সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীরা ছাড়াও লামা উপজেলার সরই ইউনিয়ন, সদরের রাজবিলা ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের পাহাড়ি-বাঙালিরাও অংশ নেয়।

মানবন্ধনে বক্তব্য রাখেন পার্বত্য নাগরিক পরিষদের আহবায়ক আতিকুর রহমান, পার্বত্য ছাত্র পরিষদের সভাপতি কেন্দ্রীয় নেতা কামরান ফারুক, পার্বত্য বাঙ্গালী সমাজের নেতা মিজানুর রহমান প্রমুখ।

নাগরিক পরিষদের আহবায়ক আতিকুর রহমান বলেন, নভেম্বর মাসে সরই’য়ে মোটর সাইকেল চালক সাজ্জাদকে হত্যা এবং রাজবিলায় মোটর সাইকেল আলিমকে হত্যার উদ্দেশে গুলি করা হয়। পাহাড়ে চাঁদাবাজি, অপহরণ, খুন সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে সন্ত্রাসীরা। অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও চাঁদাবাজি বন্ধে পাহাড়ে যৌথ বাহিনীর অভিযান পরিচালনার দাবি জানাচ্ছি। সন্তু লারমাকে উদ্দেশ্যে করে তিনি বলেন, কোনো গোষ্ঠীর নয়, পার্বত্যবাসীর নেতা হওয়ার চেষ্টা করুন। পার্বত্যাঞ্চলের পাহাড়ি-বাঙালি সকলে আপনাকে সম্মান করবে, আপনার নেতত্ব মেনে নিবে। সন্ত্রাসী পথ ছেড়ে উন্নয়নের রাজনীতিতে ফিরে আসুন।

আরো দেখুন

চারবছর পর রাঙামাটি প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগ শুরু

মনোজ্ঞ নৃত্যের ছন্দের মধ্য দিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামের তৃনমুল পর্যায়ের বিভিন্ন ফুটবল খেলোয়ারদেরকে তুলে এনে স্থানীয় …

One comment

  1. অবৈধ অস্ত্র উদ্দ্বারের দাবী এখন সাধারন জনগনের।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

three × 1 =